সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১১ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

পদ্মা সেতু নিয়ে মাতামাতি করে জনগণের ক্ষতি করা হচ্ছে: আলাল

প্রকাশিত : 07:48 PM, 17 June 2022 Friday

গণঅধিকার নিউজ ডেস্কঃ

পদ্মা সেতু নিয়ে মাতামাতি করে জনগণের ক্ষতি করা হচ্ছে বলে মন্তব্য করে বিএনপি যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল বলেছেন, এক পদ্মা সেতু নিয়ে যে মাতামাতি করছেন কত মানুষের যে ক্ষতি করেছেন তা কি জানেন?

শুক্রবার (১৭ জুন) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে নাগরিক অধিকার ফোরামের উদ্যোগে বেগম খালেদা জিয়াকে অবিলম্বে সুচিকিৎসার জন্য বিদেশের পাঠানোর দাবিতে এক মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, রাতের পরে দিন আসে, অন্ধকারের পরে আলো আসে। এদিন এ রকম থাকেব না দিন পরিবর্তন হবে। তাই অন্ধকারের থেকে আলো আসার আগে পালিয়ে যান তা না হলে দেশের জনগণ পদ্মা নদীর পানিতে আপনাদেরকে চুবাবে, আপনারা যেমন চুবাতে চেয়েছেন। সুতরাং এখনো সময় আছে মানুষের অধিকার ফিরিয়ে দেন। খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিন তার সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করেন।

আলাল বলেন, আগের বছরের চেয়ে এ বছরে তিন হাজার কোটি টাকা বেশি পাচার হয়েছে। কারা পাচার করেছে? এটা আমার আপনার বলার দরকার নাই। পরাষ্ট্রমন্ত্রী নিজেই বলেছেন কারা টাকা পাচার করেছে। দেশের সরকারি আমলারা ও আওয়ামী লীগের রাজনীতিবিদরাই টাকা পাচার করেছে।

তিনি বলেন, সারা দেশের জনগণের নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া। তিনি তার সারা জীবনে ২৩টি আসনে নির্বাচন করেছেন। সবকটি আসনেই তিনি জয় পেয়েছেন। পরাজয় বলতে তার কোনো কিছু নেই। আর এই কারণেই এই সরকারের রেশনালে পড়েছেন তিনি।

‘আওয়ামী লীগের জনপ্রিয়তা হলো কিছু গণবিরোধী কর্মকর্তা, কিছু পুলিশের কর্মকর্তার ওপরে আর বিএনপির জনপ্রিয়তা এদেশের জনগণের দোয়া এবং সমর্থন এর ওপরে।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক গণঅধিকার'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyganoadhikar@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

দৈনিক গণঅধিকার'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

এই বিভাগের জনপ্রিয়

© ২০২২ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। দৈনিক গণঅধিকার | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, ডেভোলপ ও ডিজাইন: DONET IT