সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১১ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

কালোজিরা খাওয়ার উপকারিতা কি

প্রকাশিত : 12:50 AM, 16 June 2022 Thursday

গণঅধিকার নিউজ ডেস্কঃ

কলোজিরা বহুল ব্যবহৃত এবং সহজলভ্য একটি মশলা অথবা ভেষজ। কালোজিরা খাওয়ার উপকারিতা কি তা আমাদের সকলেরই জেনে রাখা উচিত! কালোজিরা আয়ুর্বেদীয়, ইউনানি বা কবিরাজি, যৌন, চর্ম ও লোকজ চিকিৎসায় বহুবিধ রোগ নিরাময়ের জন্য ব্যবহার হয়ে থাকে। তাহলে; চলুন জেনে নেয়া যাক কালোজিরা খাওয়ার ৫০ টি উপকারিতা কি কি?

কালোজিরা খাওয়ার উপকারিতা কি:

১. প্রসব কালীন ব্যথা কমাতে, প্রসূতির স্তনে দুধ বৃদ্ধির জন্য প্রসবের পরে কালোজিরার ভর্তা খাওয়ার প্রমাণিত উপকারী বিধান
আছে।
২. প্রশ্বাবের পরিমান বাড়ানোর জন্য কালোজিরা খাওয়া হয়।
৩. মাথাব্যথা কমাতে, মাথা ঝিমঝিম করা, মাইগ্রেন নিরাময়ে কালোজিরা যথেষ্ট উপকারী।
৪. পেটফাঁফা নিরাময়ে কালোজিরা যথেষ্ট উপকারী।
৫. চামড়ার ফুসকুরি, ব্রঙ্কাইটিস, এলার্জি, একজিমা, এজমা আরোগ্য করে কালোজিরা।
৬. ডায়রিয়া নিরাময়ে কালোজিরা যথেষ্ট উপকারী।
৭. আমাশয় নিরাময়ে কালোজিরা উপকারী।
৮. গ্যাসট্রিক আলসার দূর করে কালোজিরা।
৯. জন্ডিস হলে কালোজিরা পথ্য হিসেবে ব্যবহার করা হয়।
১০.খোসপাঁচড়া, ছুলি বা শ্বেতি হলে কালোজিরা খেতে হয়।
১১. অর্শরোগ আরোগ্য হয় কালোজিরা খাওয়ার ফলে।
১২. দাদে কালোজিরা অব্যর্থ ওষুধ হিসেবে ভূমিকা রাখে করে।
১৩. স্নায়ুবিক উত্তেজনায় কালোজিরা ফলদায়ক।
১৪. উরুসদ্ধি প্রদাহ কমে যায় কালোজিরা খাওয়ার ফলে।
১৫. শরিলের আঁচিল দূর হয় কালোজিরা সেবনে।
১৬.স্মরণশক্তি বৃদ্ধিতে কালোজিরা নিয়মিত খেতে হয়।
১৭. মস্তিষ্কের রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধির মাধ্যমে স্মরণশক্তি বাড়িয়ে তুলতে সাহায্য করে এই কালোজিরা।
১৮. শরীরের অতিরিক্ত মেদ কমাতে সাহায্য কারে এই কালোজিরা।
১৯. স্ট্রোক, স্থুলতা রোধ করতে দারুণ কাজ করে কালোজিরা।
২০. গায়ের ব্যথা দূর করতে কালোজিরা বিশেষভাবে উপকার করে।
২১. ক্যান্সার প্রতিরোধক হিসেবে কালোজিরা সহায়ক ভূমিকা পালন করে।
২২. বহুমূত্র বা ডায়াবেটিক্স রোগীদের রক্তের শর্করার মাত্রা কমিয়ে দিয়ে, ইনসুলিন সমন্বয় করে ডায়াবেটি্স নিয়ন্ত্রণ করে
কালোজিরা।
২৩. হার্টের বিভিন্ন সমস্যা, হাইপারটেনশন, নিম্ন রক্তচাপকে বাড়ায়; আর উচ্চ রক্তচাপকে কমিয়ে হৃদরোগের ঝুঁকি কমিয়ে
রক্তের স্বাভাবিকতা রক্ষা করে কালোজিরা।
২৪. কালোজিরা কৃমি দূর করার জন্য অসাধারন কাজ করে।
২৫. কালোজিরার তেলের উপকার শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়
ত্বকের সুস্বাস্থ্য ও মাংসপেশির ব্যথা কমাতে কালোজিরার তেল উপযোগী।
২৬. পেটের যাবতীয় রোগ-জীবাণু ও গ্যাস দূর করে থাকে কালোজিরা।
২৭. কালোজিরা খাওয়ার ফলে দৈনন্দিন জীবনে দেহে বাড়তি শক্তি অজির্ত হয়।
২৮. কালোজিরার তেল ব্যবহারে রাতের অনিদ্রা দূর হয় ও শান্তি মতো ঘুম হয়।
২৯. ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়া নিধন থেকে শুরু করে শরীরের কোষ ও কলার বৃদ্ধিতে সাহায্য করে কালোজিরা।

কলোজিরা খেলে যৌ* শক্তি বাড়ে কেনোঃ
রাসূল (সঃ) ব‌লেন, “তোমরা এই কালোজিরা ব্যবহার করবে, কেননা এতে একমাত্র সাম (মৃত্যু) ব্যতীত সর্বরোগের শেফা (আরোগ্য) রয়েছে।” -বুখারী ও মুসলিম। উক্ত হাদিস দ্বারা রোগ নিরাময়ে কালোজিরার সত্যতা প্রমাণিত হয়। কালোজিরা খেলে যৌ* শক্তি বহূগুনে বেড়ে যায়; কারন কালোজিরা স্নায়ুকে উজ্জীবিত করে ও দেহের রক্ত চলাচল বৃদ্ধি করে।

যৌ* শক্তি বাড়াতে কালোজিরার উপাদান জাদুকরি ভূমিকা রাখে। কারন; কালোজিরাতে প্রায় ১০০ টিরও বেশি পুষ্টি ও উপকারী উপাদান আছে। কালোজিরা ফুলের মধু উৎকৃষ্ট মধু হিসেবে বিশ্বব্যাপী বিবেচিত।
কালোজিরার প্রধান উপাদানের মধ্যে আমিষ রয়েছে ২১%, শর্করা রয়েছে ৩৮ %, স্নেহ ৩৫%। এছাড়াও ভিটামিন ও খনিজ পদার্থ আছে! প্রতি গ্রাম কালিজিরার পুষ্টি উপাদান হলোঃ প্রোটিন ২০৮ মাইক্রো গ্রাম; আয়রন রয়েছে ১০৫ মাইক্রো গ্রাম; ফসফরাস রয়েছে ৫.২৬ মিলি গ্রাম; কপার রয়েছে ১৮ মাইক্রো গ্রাম; জিংক আছে ৬০ মাইক্রো গ্রাম, ভিটামিন বি(১)রয়েছে ১৫ মাইক্রো গ্রাম; নিয়াসিন রয়েছে ৫৭ মাইক্রো গ্রাম; ক্যালসিয়াম রয়েছে ১.৮৫ মাইক্রো গ্রাম; ফোলাসিন আছে ৬১০ আইউ।
এই সমস্ত উপদান গুলো খুবই উপকারি ও আমাদের দেহের জন্য অতি প্রয়োজনীয়। উক্ত উপাদন যৌ* শক্তি বাড়াতে খুবই সহায়ক। তাই যৌ* শক্তি বাড়ানোর জন্য আমাদের নিয়মিত কালোজিরা খেতে হবে।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক গণঅধিকার'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyganoadhikar@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

দৈনিক গণঅধিকার'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© ২০২২ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। দৈনিক গণঅধিকার | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, ডেভোলপ ও ডিজাইন: DONET IT